সরকারবিরোধী আন্দোলনে অর্থের সংস্থানে বিদেশ সফরে ড. কামাল!

নিউজ ডেস্ক: আগামীতে সরকারবিরোধী আন্দোলন জোরদারের লক্ষ্যে অর্থসংস্থানের ব্যবস্থা করতে বিদেশ সফর করছেন গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। জানা গেছে, সোমবার (১১ মার্চ) রাতে ব্যাংককে যাওয়ার জন্য ঢাকা ত্যাগ করেন তিনি। ব্যাংকক থেকে পরবর্তীতে দক্ষিণ কোরিয়া যাওয়ার কথা রয়েছে তার।

তবে বিএনপির একাধিক সংস্কারপন্থী ও ড. কামাল বিরোধী সূত্রগুলো বলছে, ড. কামাল ব্যাংকক থেকে গোপনে লন্ডন যাবেন। লন্ডন সফরকে গোপন রাখতে কৌশলে দক্ষিণ কোরিয়ার নাম বলা হয়েছে। মূলত আগামীতে বেগম জিয়ার মুক্তি, দেশব্যাপী সরকারবিরোধী তীব্র আন্দোলন গড়ে তোলা, আওয়ামী লীগকে আন্তর্জাতিকভাবে চাপের মুখে ফেলার মতো একাধিক কৌশল নির্ধারণ করতে লন্ডনে বিএনপি নেতার সঙ্গে বৈঠকে বসবেন ড. কামাল। পাশাপাশি দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তুলতে এবং আটক নেতা-কর্মীদের মামলা থেকে মুক্তি দিতে যে অর্থের প্রয়োজন সেটির সংস্থান করার জন্যই লন্ডনে তারেকের শরণাপন্ন হবেন ড. কামাল। প্রয়োজনে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য সরকারের সঙ্গে দেন-দরবার করতে ড. কামালকে বিশেষ অনুরোধ করবেন তারেক বলেও সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

ড. কামাল হোসেনের মতিঝিল চেম্বার সূত্রে জানা গেছে, তিনি ব্যাংককে চেকআপ করে সেখান থেকে আরেক দেশে যাবেন। তবে বিশেষ কারণে সেটি কাউকে জানানো হচ্ছে না। ড. কামাল একজন প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও আইনজীবী, সুতরাং তিনি বিদেশ সফর করতেই পারেন। এটি নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।

যদিও যুক্তরাজ্য স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি নাসির আহমেদ শাহিনের মারফতে জানা গেছে, তারেক রহমানের বিশেষ নিমন্ত্রণে অনেকটা লোকচক্ষুর আড়ালেই লন্ডন সফর করবেন ড. কামাল। এখানে বিখ্যাত আইনজীবী লর্ড কার্লাইলের সঙ্গে বেগম জিয়ার মুক্তি নিয়ে আইনি পরামর্শ করবেন তিনি। পাশাপাশি ক্ষমতাসীন সরকারের উপর কূটনৈতিক চাপ বাড়াতে লন্ডনে অবস্থিত একাধিক শক্তিশালী রাষ্ট্রের দূতাবাসগুলোর কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে অংশও নেবেন ড. কামাল।

এদিকে লন্ডন জামায়াতের বহিষ্কৃত নেতা মুজিবুর রহমান মঞ্জুর মারফত জানা গেছে, ড. কামালের লন্ডন সফরের মূল উদ্দেশ্য হলো ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তুলতে অর্থের সংস্থান করা। সেই অর্থ পাকিস্তান ও ইসরাইল দূতাবাস সরবরাহ করতে পারে। ড. কামাল পাকিস্তানের টাকা নিলে জামায়াতের কোনো আপত্তি থাকবে না। তবে ইসরাইলের মতো ইসলাম বিদ্বেষী রাষ্ট্রের সহায়তা নেয়াকে জামায়াত সমর্থন নাও করতে পারে। এ বিষয়ে লন্ডন জামায়াতের পক্ষ থেকে তারেক রহমানকেও অবগত করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *