অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ: রিজভীকে মির্জা ফখরুলের ভর্ৎসনা

নিউজ ডেস্ক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর থেকে বিএনপিতে ভাঙনের ভয়াবহতা বেড়েই চলেছে। এই ভাঙন তৈরিতে বিএনপির সিনিয়র কয়েকজন নেতাকে দোষারোপ করা হচ্ছে। মওদুদ আহমেদ, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও ড. মঈন খান দলের ভেতর ভাঙন সৃষ্টির চেষ্টা করছেন বলে জানিয়েছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

১২ই মার্চ বিএনপির নয়াপল্টন কার্যালয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, বিএনপিতে কিছু দুমুখো চরিত্রের নেতা রয়েছেন। যার কারণেই বিএনপির আজ এমন দুর্দশা। এসব নেতারা চায় তারেক রহমান ও বেগম খালেদা জিয়াকে সরিয়ে দিয়ে তারাই হবে দলের প্রধান। কিন্তু আমরা জিয়ার সৈনিকরা তা কখনোই হতে দেবো না।

সূত্রমতে, গত ১১ মার্চ রুহুল কবির রিজভী দলীয় কার্যালয়ে দলে ভাঙন সৃষ্টির সুযোগসন্ধানী নেতাদের সম্বন্ধে খোঁজ- খবর রাখতে তার একনিষ্ঠ কয়েকজনকে বলেন, ডেভিলদের খবর কি? ওদের দিকে নজর রাখো। ম্যাডামের কারাদণ্ড হবার পর থেকেই তারা বিএনপির প্রধান হওয়ার স্বপ্নে বিভোর রয়েছে। তারা চাইছে দল ভেঙে দিতে।

তবে রিজভীর মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মির্জা ফখরুল সেদিন দলীয় কার্যালয়ে গিয়ে ক্ষিপ্ত স্বরে বলেন, কে বলেছে আমি ভাঙছি? কারা ছড়াচ্ছে বিএনপির ভাঙনের গুজব? শুধু শুধু ভাঙা দলটিকে আরো ভেঙে চেষ্টাও সফল হবে না তারা।
রিজভীকে উদ্দেশ্য করে উত্তেজিত মির্জা ফখরুল আরো বলেন, ঘরের মধ্যে থেকে দু’চারটা কথা বলে নেতা হওয়া যায় না। নেতা হওয়া এত সহজ নয়। বিএনপি ভাঙছে বলে যারা গুজব ছড়াচ্ছে তারাই হচ্ছে কুচক্রী মহলের এজেন্ট। অতি ভক্তি চোরের লক্ষণ। এরাই বিএনপিতে বিচ্ছেদ সৃষ্টি করছে।

এরপর দ্রুতগতিতে মির্জা ফখরুল কার্যালয়ে তার কক্ষের মধ্যে প্রবেশ করেন। রিজভী অবশ্য এসব কোনো কথারই জবাব দেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *