উপজেলা পর্যায়ের মাদ্রাসায় স্থাপিত হচ্ছে আইসিটি ল্যাব

মাদ্রাসা শিক্ষা’র উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। ইসলামী শিক্ষার সঙ্গে আধুনিক শিক্ষার সমন্বয় করে যুগোপযোগী পাঠ্যসূচি প্রণয়ন, শিক্ষক প্রশিক্ষণসহ অবকাঠামো উন্নয়নেও পদক্ষেপ নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ। এ শিক্ষার উন্নয়নে সরকার একটি মহাপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে।  ২০৩০ সালের মধ্যে সব মাদ্রাসায় ডিজিটাল মাল্টিমিডিয়া স্থাপন করা হবে। এ ছাড়া সময়ের চাহিদার সঙ্গে তাল মিলিয়ে যুগোপযোগী হচ্ছে পাঠক্রম।
দেশের প্রতিটি উপজেলায় দুটি করে মাদরাসায় আইসিটি ল্যাব স্থাপন করবে সরকার। জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্বাচিত দুটি প্রতিষ্ঠানের তথ্য আগামী ১৩ মার্চের মধ্যে মাদরাসা অধিদফতরে পাঠাতে বলা হয়েছে।
জানা গেছে, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় প্রতিটি উপজেলায় দুটি করে মাদরাসায় আইসিটি ল্যাব স্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখনও আইসিটি ল্যাব স্থাপন করা হয়নি সেসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের উন্নয়নের কথা বিবেচনা করে আইসিটি ল্যাব স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়। গত ৬ মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ থেকে মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরে এ সংক্রান্ত চিঠি পাঠানো হয়েছে।
জেলা ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের প্রতিটি উপজেলায় দুটি করে মাদরাসা নির্বাচন করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য অধিদফতরে আগামী বুধবারের (১৩ মার্চ) মধ্যে পাঠাতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
মাদরাসা নির্বাচনে কয়েকটি শর্ত দিয়েছে অধিদফতর। যেসব মাদরাসায় আইসিটি ল্যাব নেই তবে বিদ্যুৎ সংযোগ রয়েছে এবং একাডেমিক স্বীকৃতিপ্রাপ্ত -সেসব মাদরাসা নির্বাচন করে তথ্য পাঠাতে বলা হয়েছে। প্রতি উপজেলার নির্বাচিত দুইটি মাদরাসার নাম, মোট শিক্ষার্থী সংখ্যা, আলাদাভাবে ছাত্র ও ছাত্রী সংখ্যা, একাডেমিক স্বীকৃতি প্রাপ্তির তারিখ ও প্রতিষ্ঠান প্রধানের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য তার মোবাইল নম্বর ও ই-মেইলের ঠিকানা মাদরাসা শিক্ষা অধিদফতরে পাঠাতে হবে।
এদিকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার মাদ্রাসা শিক্ষার আধুনিকায়ন, মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদপ্তর স্থাপনের উদ্যোগ, ১০০টি কারিগরি মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা, ৩৫টি আধুনিক প্রযুক্তিসমৃদ্ধ মডেল মাদ্রাসা স্থাপন, ১০০০ মাদ্রাসার একাডেমিক ভবন নির্মাণ করেছে।
এছাড়াও ৩১টি মাদ্রাসায় অনার্স কোর্স চালু করা, ইসলামী আরবি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের উদ্যোগ, মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন সমতা নিশ্চিত করা, শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করাসহ বেশ কয়েকটি কাজ সমাপ্ত করেছে সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *