যে কারণে কারাগারে ফেরত যাচ্ছেন খালেদা জিয়া

নিউজ ডেস্ক: বড় কোনো অসুখ না থাকায় বিএনপির কারান্তরীণ চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে আবার পুনরায় কারাগারে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। খালেদা জিয়াকে গত ১ এপ্রিল নাজিম উদ্দিন রোডের বিশেষ কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ)’তে নিয়ে আসা হয়।

সেখানে একটি মেডিকেল বোর্ডের অধীনে তাকে চিকিৎসা করানো হচ্ছে। কিন্তু বিএনপি থেকে বারবার বলা হচ্ছে, খালেদা জিয়ার তেমন কোনো চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না।

বিএনপি নেতাদের করা এমন অভিযোগকে অবান্তর ঘোষণা দিয়ে বিএসএমএমইউ’র চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, নিয়মিত বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে। কিন্তু তার শরীরে তেমন কোনো বড় রোগ নেই। খালেদা জিয়ার যেসমস্ত শারীরিক সমস্যা আছে সেগুলো নিয়ন্ত্রিত জীবন যাপনের মাধ্যমেই প্রতিরোধ করা সম্ভব। তার উচ্চ ডায়াবেটিস আছে। পাশাপাশি ব্যথাজনিত সমস্যাও রয়েছে। এরজন্য দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা দরকার। আর এসব চিকিৎসা হাসপাতালে রেখে করতে হবে এমনটিও নয়। এসব চিকিৎসা কারাগারেও করা যায়। বিএনপি থেকে যতই অভিযোগ করা হোক না কেনো, খালেদা জিয়ার যদি জটিল কোনো রোগই না হয়, তবে আমরা তার কী চিকিৎসা করবো? এটা বিএনপির অযৌক্তিক দাবি।

এদিকে সরকারের একাধিক সূত্র বলছে, বিএনপির তরফ থেকে উপস্থাপিত সমঝোতার অংশ হিসেবেই বেগম জিয়াকে বিএসএমএমইউ’তে নিয়ে আসা হয়েছিল। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়া নিজেই এখন প্যারোলে মুক্তি বিষয়ে রাজি নন। বিএনপির নেতারাও এখন প্যারোলের দাবি নিয়ে সরকারের কাছে দেন-দরবার করছে না। কাজেই বেগম খালেদা জিয়াকে আবার কারাগারে ফেরত নিয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে যে, পয়লা বৈশাখের পরেই বেগম খালেদা জিয়াকে আবার কারাগারে নিয়ে যাওয়া হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *