বিজেপির জয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে সতর্ক ও সংযত বিএনপি!

নিউজ ডেস্ক : ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজেপি যখন ক্ষমতায় এসেছিলো তখন বিএনপির উচ্ছ্বাসও অন্যরকম ছিলো। রাজনীতিতে প্রচলিত ছিলো, বিজেপির সঙ্গে বাংলাদেশের রাজনৈতিক দল বিএনপির ভালো সম্পর্ক রয়েছে। কিন্তু ২০১৪ সালের নির্বাচনের পর সে ধারণা ভুল প্রমাণ হয়। আর সে কারণেই সেবার উচ্ছ্বাস দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। এবার ১৭ তম লোকসভা নির্বাচনে জয়ের পর বিগত সময়ের উচ্ছ্বাস লক্ষ্য করা যায়নি বিএনপির।

মোটাদাগে মোদির ৫ বছরে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সম্পর্ক ভালো ছিলো। এ সম্পর্ক একটি উচ্চতায় নিয়ে গেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বিএনপির নেতারাও মনে করেন, বিজেপির সঙ্গে বিএনপির সম্পর্ক গত ৫ বছরে ভালো হয়নি। অতীতে বিজেপির সঙ্গে বিএনপির যে ‘ভালো সম্পর্ক’ ছিলো এখন আর তা নেই। আর তাই মোদির দ্বিতীয় মেয়াদের জয়ে আগের বারের মতো উচ্ছ্বসিত নয় বিএনপি। প্রতিক্রিয়া প্রকাশে এবার অনেকটাই সতর্ক ও সংযত দলটি।

বিএনপির রাজনীতির প্রতি সহানুভূতিশীল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের একজন অধ্যাপক বলেন, জঙ্গি অর্থায়ন, সন্ত্রাসবাদে মদদ, জামায়াত-শিবিরের পৃষ্ঠপোষকতাসহ নানা কারণে বিজেপির সঙ্গে বিএনপির একটি দূরত্ব বিদ্যমান। পুরনো দুঃসম্পর্কের জের ধরে এই পাঁচ বছরে বিএনপি বিজেপির সঙ্গে সেভাবে সম্পর্ক রাখতে পারেনি। বিএনপির পররাষ্ট্রনীতি নিয়ে যারা কাজ করেন, তারাও তেমন তৎপর ছিলেন না। আর বিজেপিও আগ্রহ দেখায়নি, দেখাচ্ছেও না। যার ফলে বিজেপির ব্যাপারে বেশ সতর্ক ও সংযত বিএনপি।

এদিকে ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির জয়ের পর বিএনপির নেতা-কর্মীরা উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে। বিএনপি তখন মনে করেছিল, কংগ্রেস সরকারের পরাজয়ের ফলে আওয়ামী লীগ কিছুটা চাপে পড়বে। কেননা, কংগ্রেসের সঙ্গে শেখ হাসিনার পরিবারেরও সু-সম্পর্ক রয়েছে। সেদিক থেকে বিজেপির ক্ষমতায় আসাতে বিএনপি বেশ খুশিই হয়েছিল। দলটির ধারণা ছিলো, বিজেপি কংগ্রেসের মতো একতরফাভাবে আওয়ামী লীগকে সমর্থন করবে না। কিন্তু তা হয়নি।

এমন প্রেক্ষাপটে ধারণা করা হচ্ছে, বিগত পাঁচ বছরে বিজেপির সঙ্গে সু-সম্পর্ক তৈরি করতে না পারা বিএনপি হয়তো নতুন কিছুর জন্য অপেক্ষা করছে। আর সে কারণেই নির্বাচিত মোদি সরকারের বিষয়ে সতর্ক ও সংযত অবস্থান নিয়ে নতুন পথ খুঁজছে বিএনপি। উদ্দেশ্য- একটি সুসম্পর্কের মাধ্যমে কিছু সুবিধা আদায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *