ঐক্যফ্রন্টে জামায়াতকে অন্তর্ভুক্ত করতে অনুঘটকের ভূমিকায় ফখরুল, ক্ষুব্ধ মান্না!

নিউজ ডেস্ক: মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আদালত কর্তৃক নিষিদ্ধ জামায়াতে ইসলামীকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য গোপনে অনুঘটকের ভূমিকা পালনের অভিযোগ উঠেছে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বিরুদ্ধে।

১০ জুন এক বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টের পরিসর বাড়ানোর পরিকল্পনার কথা বলেন মির্জা ফখরুল। পাশাপাশি জামায়াতের বিষয়ে ঐক্যফ্রন্টকে নতুন করে চিন্তা-ভাবনা করার বিষয়ে ইঙ্গিত দিলে জামায়াতের বিষয়ে মির্জা ফখরুলের গোপন প্রীতি নিয়ে নানা সমালোচনা শুরু হয়।

ড. কামালের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ফখরুলের জামায়াত প্রীতির বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের রোষানলে পড়তে হয়েছে মির্জা ফখরুলকে। ঐক্যফ্রন্টের একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে মির্জা ফখরুলের এমন প্রয়াস সৃষ্ট সমালোচনার সত্যতা সম্পর্কে জানা গেছে।

জামায়াতের বিষয়ে মির্জা ফখরুলের গোপন মিশনের বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, বিতর্কিত জামায়াতের বিষয়ে কথা না বলতে শুরু থেকেই বিএনপির প্রতি বিশেষ নির্দেশনা ছিল আমাদের। আমরা কোনভাবেই ফ্রন্ট কলঙ্কিত করতে চাই না। মাঝখানে সব ঠিকঠাক থাকলেও সাম্প্রতিক সময়ে কর্মসূচিহীন থাকায় ফ্রন্টকে শক্তিশালী করতে বিএনপির নেতৃবৃন্দ অস্পষ্ট স্বরে জামায়াতকে সঙ্গী বানানোর আভাস দিচ্ছেন। বিষয়টি ঐক্যফ্রন্টের জন্য উদ্বেগজনক।

তিনি আরো বলেন, শুনছি-জামায়াতের ভাঙ্গন রোধ করে দলটিকে নতুন করে পুনর্বাসিত করতে বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল গোপনে অনুঘটকের ভূমিকা পালন করার চেষ্টা করছেন। যে জামায়াতকে নিয়ে বিএনপিকে সারা জীবন দুয়ো শুনতে হলো, সেই জামায়াত প্রীতি দূর করতে না পারাটা বিএনপি নেতাদের জন্য অপমানজনক। নূন্যতম রাজনৈতিক আদর্শ থাকলে দেশ বিরোধী শক্তির দালালি করার সাহস পেতেন না বিএনপি নেতারা। বিষয়টি ভাবতেই অবাক লাগছে আমার।

জামায়াতের বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, জামায়াত আমাদের পুরনো মিত্র। তবে আমরা জামায়াতের কলঙ্কের ভাগীদার হতে চাই না। আমি জামায়াতের অনুঘটক নই। তাদের দু-চারজন নেতার সাথে আমার যোগাযোগ রয়েছে। সেটি তো রাজনৈতিক স্বার্থে। জামায়াত বিএনপির জন্য ফ্যাক্ট।

তিনি আরো বলেন, জামায়াতের বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করাটা অপরাধের কিছু নয়। যারা বলছে আমি জামায়াতের অনুঘটকের ভূমিকা পালন করছি, তারা রাজনীতি বুঝেন না। রাজনীতিতে কাউকে অবহেলা করতে নেই, আমি সেটি ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের বুঝিয়েছি। কাউকে পুনর্বাসন করার দায়িত্ব নেইনি আমি। মান্না না বুঝেই হইচই করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *