ভেজালবিরোধী অভিযান জোরদার, সরকারের ইতিবাচক দৃষ্টিতে খুশি সকলেই

ভেজাল, নকল ও নিম্নমানের নানা পণ্যের ভয়াল গ্রাস থেকে দেশবাসীকে বাঁচাতে কঠোর অভিযানের সিদ্ধান্ত দিয়েছে বর্তমান সরকার।  সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রশাসনও কঠোর অবস্থান নিয়েছে।  ভেজালের বিরুদ্ধে সরকারের ইতিবাচক মনোভাবে সন্তুষ্ট দেশের প্রতিটি স্তরের মানুষ।  তারা বলছেন, এই সামাজিক ও মনস্তাত্ত্বিক অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে কঠোর অভিযানের বিকল্প নেই।

শিশুর গুড়ো দুধ থেকে বৃদ্ধের ইনসুলিন, রূপচর্চার কসমেটিকস থেকে শক্তি বর্ধক ভিটামিন, এমন কী বেঁচে থাকার জন্য যা অপরিহার্য, সেই পানি এবং জীবন রক্ষাকারী ওষুধ পর্যন্ত এখন ভেজালে ভরপুর।  গরিব ধনী নির্বিশেষে এই ভয়াবহতার শিকার সকলেই।  আর তাই জীবন ধারণের জন্য খাদ্যের মান নিয়ন্ত্রণে কোনো ছাড় না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, এ পর্যন্ত সারা দেশে অভিযান চালিয়ে অসংখ্য প্রতিষ্ঠান ও দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।  যা অব্যাহত থাকবে।

এ প্রসঙ্গে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের একজন কর্মকর্তা বলেন, সারা দেশে অভিযানের ফলে খাদ্যে ভেজাল দেয়ার প্রবণতা অনেকটাই কমে এসেছে।  তবে আরও কিছু কুচক্রীরা এই প্রচেষ্টা আড়ালে-আবডালে অব্যাহত রেখেছে।  তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসন সতর্ক।  ফলে আরও কঠোরভাবে অভিযান পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।  আশা করছি এ অভিযান অব্যাহত রাখা হবে, এর ফলে ভেজালের দৌরাত্ম্য ক্রমেই কমে আসবে।  এরইমধ্যে অনেক ক্ষেত্রেই ভেজালের প্রবণতা কমে এসেছে।  এতে জনমনেও স্বস্তি ফিরতে শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *