বিএনপির অধঃপতন মেনে নিয়ে পৌরাণিক চরিত্রের রূপ দিয়ে সমালোচিত মির্জা ফখরুল!

নিউজ ডেস্ক : যতই চেষ্টা করা হোক না কেন বিএনপি ফিনিক্স পাখির মতোই জেগে উঠবে বলে মনে করেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এদিকে মির্জা ফখরুলের এমন পৌরাণিক দাবি হাস্যরসের জন্ম দিয়েছে রাজনৈতিক অঙ্গনে। রাজনৈতিক সচেতনরা বলছেন, ভুলে ভরা রাজনীতি করে বিএনপি বিলুপ্ত হয়ে ইতিহাসের পাতায় জায়গা করতে যাচ্ছে, তারই আভাস দিয়েছেন মির্জা ফখরুল। নিজেদের অকর্মণ্য রাজনীতির কারণে বিএনপিকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে দাঁড় করিয়ে এখন দিবাস্বপ্ন দেখছেন দলটির নেতারা। বিষয়গুলোকে রাজনৈতিক ভণ্ডামির চূড়ান্ত রূপ হিসেবেও দাবি করেছেন তারা।

মির্জা ফখরুলের আশাকে হাস্যকর ও গন্তব্যহীন রাজনীতির চর্চা হিসেবে বিবেচনা করছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক। তার মতে, বিএনপির বর্তমান বিভ্রান্তিকর রাজনীতি চর্চার জন্য ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে দলটির অদূরদর্শী পরিকল্পনা দায়ী। বিএনপির রাজনীতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার অভাবে। আসলে লুটপাটের রাজনীতি করে ফুরসৎ না পাওয়ায় বিএনপিকে আজকে চরম দুর্দিন দেখতে হচ্ছে। জেল-জরিমানা, মামলার ভয়ে দলটির নেতারা রাজনীতি ছেড়ে নির্বাসন গিয়েছেন। কোমরের জোর হারিয়ে নেতারা এখন পৌরাণিক কাহিনী শোনাচ্ছেন। এর চেয়ে বেশি হাস্যকর আর কি হতে পারে!

তিনি আরো বলেন, ব্যর্থতার চূড়ান্ত পরিণাম অনুধাবন করেই ফখরুল সাহেব এখন হাতপা গুটিয়ে বিএনপির জেগে ওঠার অপেক্ষা করছেন। মির্জা ফখরুলের এই অপেক্ষা ‘ওয়েটিং ফর গডো’ এর মতো। কিন্তু বাস্তবতা হলো, তাদের উদ্ধার করতে কেউ আসবে না। অন্যের সাহায্য নেয়ার অভ্যাস কোনদিনই ছাড়তে পারবে না বিএনপি। মাঝখান থেকে বিএনপি মুসলিম লীগের মতো ক্ষয়িষ্ণু দল হয়ে এক সময় ইতিহাসের অংশ হয়ে পড়বে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *