প্রায় চার মাস পর খুলছে প্যারিসের ল্যুভর মিউজিয়াম

প্রায় চার মাস পর খুলছে প্যারিসের ল্যুভর মিউজিয়াম

প্রায় চার মাস পর খুলছে বিশ্বের জনপ্রিয় দর্শনীয় স্থান প্যারিসের ল্যুভর মিউজিয়াম। লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির আঁকা বিশ্ববিখ্যাত মোনালিসার ছবি এখানেই রয়েছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবং লকডাউনের জেরে গত কয়েক মাস ধরে বন্ধ ছিল জাদুঘর।

মার্চ মাসের ১৩ তারিখ থেকে বন্ধ থাকার জেরে ৪০ মিলিয়ন ইউরোরও বেশি আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ল্যুভর মিউজিয়ামের। ডিরেক্টর জিন লাক মার্টিনেজ জানিয়েছেন, গত বছর ল্যুভর মিউজিয়াম দেখতে যান প্রায় ৯৬ লক্ষ মানুষ। এবছর তার তিন ভাগের এক ভাগও হবে কিনা সন্দেহ। কারণ ল্যুভর মিউজিয়ামের দর্শনার্থীরা বেশির ভাগই বিদেশ থেকে আসেন।

গত বছরেও এই সময়ে যেখানে প্রতিদিন গড়ে ৪ হাজার থেকে ১০ হাজার দর্শক আসতেন, এবার গত প্রায় চার মাস ধরে শূন্য।

প্রাচীন নিদর্শন ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপরূপ মিশেলে ফ্রান্সের ল্যুভর মিউজিয়াম এক আশ্চর্যজনক বিস্ময়। প্যারিসের সীন নদীর তীর ঘেঁষে কাচের তৈরি পিরামিড দিয়ে নবরূপে নির্মিত ল্যুভর মিউজিয়াম এক সময় ফ্রান্সের রাজাদের দুর্গ ও পরবর্তীতে রাজ প্রাসাদ হিসেবে ব্যবহার করা হলেও বর্তমানে তা পৃথিবীর সবচেয়ে আশ্চর্য এবং আকর্ষণীয় এক জাদুঘর। পর্যটকদের মনে আলাদা একটা জায়গা করে নিয়েছে ল্যুভর।

সোমবার থেকে যে ল্যুভর খুলছে, তবে বেশ কিছু নিয়ম মানতে হবে। দর্শনার্থীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। জিনিসপত্র রাখার যে ঘর ছিল, তা ব্যবহার করা যাবে না। কোনো খাবার পাওয়া যাবে না মিউজিয়াম চত্বরের ভিতরে। যে পথ ঘুরে দেখার জন্য ঠিক করা হয়েছে, সেখান দিয়েই যেতে হবে সকলকে। ইচ্ছেমতো ঘুরে বেড়ানো যাবে না। এমনকি মোনালিসার যে ছবি, তার সামনেও দাঁড়ানোর জন্য নির্দিষ্ট জায়গা দাগ করে দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। ছবি তোলার জন্য ওখানেই দাঁড়াতে হবে দর্শকদের।

মিউজিয়াম চত্বরটি মোট চার লক্ষ ৮৫ হাজার বর্গফুট জায়গা জুড়ে অবস্থিত। তার মধ্যে ৪৫ হাজার স্কোয়ার মিটারের মধ্যেই গতিবিধি সীমাবদ্ধ থাকবে সকলের। কোনো প্রদর্শনী বা অনুষ্ঠান হবে না। -ঢাকা টাইমস