পুলিশকে আরও জনবান্ধব করতে নতুন আইন হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পুলিশকে আরও জনবান্ধব করতে নতুন আইন হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিটিবি নিউজ ডেস্ক: বর্তমান অবস্থার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন করে বাংলাদেশ পুলিশ আইন (খসড়া) করার কার্যক্রম চলমান রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

তিনি বলেন, সময়ের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশকে আরও জনবান্ধব ও সেবামুখী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করাসহ যুগোপযোগী করা হবে।

রোববার (২৬ জুন) সংসদ অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্ন উত্তর পর্বে বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য ফখরুল ইমামের এক প্রশ্নের লিখিত উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

রোববারের প্রশ্ন-উত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়। এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।  

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেন, সংবিধানের ১৫২ অনুচ্ছেদ মোতাবেক বাংলাদেশ পুলিশ একটি শৃঙ্খলা বাহিনী। তবে পেশাগত দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে কোনো পুলিশ সদস্য কর্তৃক গাফিলতি বা আইনের ব্যত্যয় ঘটলে তার বিরুদ্ধে প্রচলিত বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়ে থাকে। পুলিশ বাহিনীতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির কোনো অবকাশ নেই। পুলিশ অভ্যন্তরীণ শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ১৮টি আইন ও অধ্যাদেশ রয়েছে। এছাড়া সময়ের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশকে আরও জনবান্ধব ও সেবামুখী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করাসহ যুগোপযোগী এবং বর্তমান অবস্থার সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন করে বাংলাদেশ পুলিশ আইন (খসড়া) প্রণয়নের কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, খসড়া পুলিশ আইনে পুলিশকে আরও জনবান্ধব করে বাংলাদেশ পুলিশকে একটি সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানে পরিণত করার ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপসহ বিভিন্ন ধারা উপধারা সংযোজন করা হয়েছে। জনসম্পৃক্ততা বাড়ানো ও জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে বিট পুলিশিং এবং কমিউনিটি পুলিশিং এর ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে যা পারস্পরিক সম্পর্ক বাড়ানোর মাধ্যমে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে পুলিশিং কার্যক্রম পরিচালনায় সহায়ক হবে এবং পুলিশকে জনসেবায় অধিকতর আগ্রহী করে তুলবে।-বাংলানিউজ২৪.কম