নওগাঁর মহাদেবপুরে লীজ নেয়া ফসলী জমিতে পুকুর খননের অভিযোগ জনগনের বাঁধার মুখে কাজ বন্ধ

নওগাঁর মহাদেবপুরে লীজ নেয়া ফসলী জমিতে পুকুর খননের অভিযোগ জনগনের বাঁধার মুখে কাজ বন্ধ

নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সীমান্ত ঘেঁষা নিয়ামতপুর উপজেলাধীন ছাতড়া বিলের ধারে বিল ঘুঘরী মৌজায় সরকারি লীজ নেয়া প্রায় সোয়া ২ বিঘা ধানী জমিতে অবৈধভাবে পুকুর খোঁড়া হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
মহাদেবপুর উপজেলার বাছড়া গ্রামের মোঃ আব্দুল মান্নান এর ছেলে মোঃ রবিউল ইসলাম গত ৯ জুন নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন যে, বাছড়া গ্রামের ফয়জুল দেওয়ান এর পুত্র মোঃ রফিকুল ইসলাম ফসলী জমি নষ্ট ও পানি নিষ্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে তাদের লীজ নেয়া ধানি জমিতে ভেকু মেশিন দ্বারা (খনন যন্ত্র) পুকুর শুরু করে। এতে তাদেরসহ প্রায় ৫০ বিঘা জমির ফসলের ক্ষতি সাধন হওয়ার সম্ভবনা আছে। ওই জমির পাশ্ববর্তী জমির মালিক মৃত আব্দুল লতিফ এর স্ত্রী মোসাঃ লাইনা বেগম জানান, পুকুর খননের ফলে তার জমিতে মাটি ফেলা হয়েছে, পানি চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে যাবে যে কারণে তার জমিতে কোনো ফসল হবেনা। এব্যাপারে হাজিনগর-চন্দননগর ইউনিয়ন ভূমি সহকারি কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ মাহবুব সারোয়ার কায়েনাথ জানান, মাননীয় ইউএনও মহোদয়ের নির্দেশে পুকুর খনন কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে নিয়ামতপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়া মারীয়া পেরেরা জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর সরকারি জমিতে পুকুর খনন কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে যেন কোন কাজ করতে না পারে সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণকরা হবে।