ঈদে বাড়ি গিয়ে নেতাকর্মীদের তিরস্কারের শিকার মওদুদ আহমেদ!

এবারের ঈদে নির্বাচনী এলাকায় যাননি অধিকাংশ বিএনপি নেতা। জানা যায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি থেকেই এমন সিদ্ধান্ত। একদিকে দলীয় প্রধান বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি, অন্যদিকে দলের অবস্থা এই আছে এই নেই। এমতাবস্থায় ঈদের আনন্দ ত্যাগ করে বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি সহানুভূতি প্রদর্শনের উপায় হিসেবে বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে সিদ্ধান্ত হয়, এবার ঈদে নিজ এলাকায় না যাওয়া সহ সর্বোপরি ঈদ আনন্দ থেকে বিরত থাকবেন বিএনপি নেতা কর্মীরা।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে ঘোষণা করেছেন, ইতিহাসের সবচাইতে বেদনাদায়ক এটি তাদের জন্যে। নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন তিনি। এই সময় তিনি আরও বলেন, আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে, এ পরিস্থিতিতে আমাদের ঈদ বলে কিছু নেই। আমরা কেউ এবার ঈদে বাড়ি যাবো না, এবং সেমাই খাবো না। নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য নাজমুল হক নান্নু, অধ্যাপক সুকোমল বড়ুয়া সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, ছাত্রদলের আবদুস সাত্তার পাটোয়ারি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। জানা যায় তারা কেউই এবার ঈদে বাড়ি যাননি।

তবে এই স্রোতের বিপরীতে গিয়ে নেতাকর্মীদের রোষানলের শিকার হয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। শুক্রবার (০৭ জুন) বিকেল থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছেন বিএনপির প্রবীণ নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যায়, খালি শরীরে হাফপ্যান্ট পড়নে একদল যুবকের সঙ্গে পুকুর ঘাটে পানিতে পা ডুবিয়ে বসে আছেন তিনি। আনন্দ করছেন পুকুরে সাঁতার কাটার। সংশ্লিষ্ট সূত্রে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ ঈদ উদযাপনে নিজ গ্রাম নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে গেছেন। তবে এবার তিনি ঈদের সময়টা অন্যরকমভাবে আনন্দ করে কাটিয়েছেন। ঈদের পরদিন শুক্রবার স্থানীয় তরুণদের নিয়ে বাড়ির পুকুরে সাঁতার কাটতে নামেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ। বৃদ্ধ বয়সে তরুণদের সঙ্গে মওদুদের পুকুরে গোসল করার বিষয়টি নজর কেড়েছে সকলের। অনেকে ছবিটি বিভিন্ন ভাবে নিলেও এতে চটেছেন কেন্দ্রীয় বিএনপি।

জানা যায়, ঈদ পরবর্তী এক সভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী উক্ত ছবির বিষয়ে তিরস্কারমূলক মন্তব্য করেন। রিজভী বলেন, ‘উনি এতো আনন্দ কোথায় পেলেন বুঝলাম না! আমাদের নেত্রী জেলে, আর তিনি ঈদে বাড়ি গিয়ে পুকুরে সাঁতার কাটছেন, আনন্দ করছেন!’

এই বিষয়ে জানতে চাওয়ার জন্যে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে মুঠোফোনে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *